● মঙ্গলবার, এপ্রিল 23, 2024 | 07:03 পূর্বাহ্ন

আমল অনুযায়ী সম্মান

আমল অনুযায়ী সম্মান

একজন বুজুর্গের এক যুবক শাগরিদ ছিল। বুজুর্গ তাহার ঐ যুবক শাগরিদকে খুব মোহাব্বত করতেন এবং যথেষ্ট সম্মানও করতেন। একদিন বুজুর্গের অপরাপর মুরীদগণ তাহার খেদমতে আরজ করলেন, আপনি ঐ যুবককে বেশ মোহাব্বত করেন এবং তাহার যথেষ্ট কদরও করেন। অথচ বয়সের বিবেচনায় আমরা তাহার চাইতে অনেক বড়। বুজুর্গ মুরীদদের এই আপত্তির সরাসরি কোন জবাব না দিয়ে সকলের হাতে একটি করে পাখি ও ছুরি দিয়ে বললেন, তোমরা যার যার হাতের পাখিটি জবাই করে নিয়ে আসো। তবে শর্ত হলো, এমন জায়গায় নিয়ে জবাই করবে, যেন কেউ তোমাকে দেখতে না পারে। যুবকের হাতেও একটি পাখি ও ছুরি দিয়ে তাকেও ঐ একই হুকুম করা হলো।

শায়েখের হুকুম পাওয়ার পর সকলে নিজ নিজ পাখি ও ছুরি নিয়ে প্রস্থান করল এবং স্বল্প সময়ের মধ্যেই যার যার পাখি জবাই করে শায়েখের নিকট হাজির করল। কিন্তু যুবক সকলের পরে মলিন মুখে জীবিত পাখি হাতে নিয়ে ফিরে আসলো। এই সময় উপস্থিত সকলের কৌতূহলী দৃষ্টি যুবকের উপর পতিত হইলো এবং তাহারা যেন যুবকের এই ব্যর্থতায় মনে মনে কিছুটা খুশী হলো। হযরত শায়েখ সকলের সম্মুখেই যুবককে জিজ্ঞাসা করলেন, “বেটা! তোমার সাথীগণ সকলে আমার হুকুম অনুযায়ী যার যার পাখি জবাই করে নিয়ে আসলো। আর তুমি জবাই না করে ফিরে আসলে কেন? যুবক জবাব দিল- “ আমি এমন কোন জায়গা পাই নি, যেখানে আমাকে কেউ দেখতে পারে না। আমি যেখানেই গেলাম, সেখানেই অনুভব করলাম আল্লাহ পাক আমাকে দেখছেন। এই কারণেই আমার পাখি জবাই করা হয়নি।” যুবকের উপরোক্ত জবাব শুনে শায়েখ অত্যন্ত প্রীত হলেন এবং মুরীদগণও মনে মনে স্বীখার করলেন যে, সঙ্গত কারণেই যুবক আমাদের তুলনায় শ্রেষ্ঠত্ব পাওয়ার উপযুক্ত।

শিক্ষাঃ আল্লাহ তা’আলাকে ফাঁকি দিয়ে কোনো কাজই করা যায় না। কোনো কিছুই আল্লাহ তা’আলার দৃষ্টির বাহিরে নয়। আমরা যা কিছু্ই করি তার সব কিছু সম্পর্কে আল্লাহ সম্যক দ্রষ্টা।

এই সম্পর্কিত আরও

আবুল কালাম
বিস্তারিত...
 আরবে ঈদের তারিখ ঘোষণা
বিস্তারিত...
813788_175
বিস্তারিত...
রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান
বিস্তারিত...
জান্নাতের ফুল
বিস্তারিত...
কাজী নজরুল ইসলাম
বিস্তারিত...