● বুধবার, মে 22, 2024 | 10:35 পূর্বাহ্ন

গভীর রহস্য!

গভীর রহস্য!

হাতিব ইবনে আবি বালাতাআ। নবীজির সান্নিধ্যপ্রাপ্ত একজন সাহাবী। তৎকালে কিবতীদের রাজা মুকাওকিসের কাছে নবীজির পাঠানো চিঠি নিয়ে গিয়েছিলেন তিনি। অনেক দূর পথ পাড়ি দিয়ে তিনি পৌঁছলেন মিসরের রাজদরবারে।

মুকাওকিস ছিলেন ধর্মপ্রাণ খ্রিস্টান। মদীনা থেকে আগত দূতকে তিনি স্বগত জানালেন। আপ্যায়ন ও সমাদরে তাকে বরণ করে নিলেন। দরবারে এসে অথিতি দূতকে পাশে বসিয়ে নবীজি মুহাম্মদ (সা:)-এর পাঠানো চিঠিটি তিনি পড়লেন। তারপর মদীনা এবং সেখানকার পরিবেশ সম্পর্কে খোঁজ-খবর নিলেন।

এক পর্যায়ে তিনি হাতিবকে প্রশ্ন করলেন, ‘তোমাদের মুহাম্মদ যদি সত্যিই নবী হয়ে থাকেন, তবে তিনি কেন মদীনায় যারা তার বিরোধীতা করছে, তাদেরকে বদদুআ করে ধ্বংস করে দিচ্ছেন না? কেন তিনি তাদেরকে নিজের অলৌকিক ক্ষমতায় মদীনা থেকে বের করে দিচ্ছেন না?’

পত্রবাহক সাহাবী হাতিব (রা:) এমন জটিল প্রশ্নের কি জবাব দিবেন? যুক্তির মারপ্যাঁচে না গিয়ে তিনি খুব সাধারণভাবে পাল্টা প্রশ্ন করলেন, ‘মহামান্য মহারাজ! আমারও জানতে ইচ্ছে করে, ইহুদীরা যখন ঈসা নবী (আ:)-কে ঘেরাও করলো শূলীবিদ্ধ করার জন্য, কেন তিনি তখন বদদুআ করে উপস্থিত শত্রুদেরকে বিনাশ করে দিলেন না? তিনি কি তা পারতেন না?’

মদীনার নবী সম্পর্কে করা প্রশ্নের জবাবে নিজেদের নবীর প্রসঙ্গে পাল্টা প্রশ্নের ধরণ দেখে থমকে গেলেন মুকাওকিস সম্রাট। চেহারায় তার চিন্তার আভাস। তিনি নিরব হয়ে গেলেন। ভেতরে ভেতরে বুঝে নিলেন, সত্যিই তো! নবীদের রহস্য অনেক গভীরে সুবিস্তৃত। কেবল স্রষ্টা মহানই এসব ব্যাপারে পূর্ণ অবগত। কী লাভ অযথা বিতর্ক করে, সময় নষ্ট। যা সত্য ও সঠিক, তা এমনিতেই স্পষ্ট।

এই সম্পর্কিত আরও

আবুল কালাম
বিস্তারিত...
 আরবে ঈদের তারিখ ঘোষণা
বিস্তারিত...
রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান
বিস্তারিত...
813788_175
বিস্তারিত...
জান্নাতের ফুল
বিস্তারিত...
আশুরা স্মরণে
বিস্তারিত...