1. faysalislam405@gmail.com : ফয়সাল ইসলাম : ফয়সাল ইসলাম
  2. tajul.islam.jalaly@gmail.com : তাজুল ইসলাম জালালি : তাজুল ইসলাম জালালি
  3. marufshakhawat549@gmail.com : মারুফ হোসেন : মারুফ হোসেন
  4. sheikhmustakikmustak@gmail.com : Sheikh Mustakim Mustak : Sheikh Mustakim Mustak
  5. najmulnayeem5@gmail.com : নাজমুল নাঈম : নাজমুল নাঈম
  6. rj.black.privateboy@gmail.com : rjblack :
  7. saddam.samad.24@gmail.com : সাদ্দাম হোসাইন : সাদ্দাম হোসাইন
  8. samirahmehd1997@gmail.com : Samir Ahmed : Samir Ahmed
মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:২৮ অপরাহ্ন

জিলহজ্ব মাসের গুরুত্ব

সাদ্দাম হোসাইন
  • প্রকাশিতঃ সোমবার, ১২ জুলাই, ২০২১
  • ৬১ বার পড়া হয়েছে
জিলহজ্জ মাস
জিলহজ্জ মাস

চাঁদ দেখার উপর ভিত্তি করে আরবি মাসের গণনা শুরু হয়। মহান আল্লাহ্ সুবহানাহু তা’আলা পবিত্র কুরআনে মোট ১২টি মাসের মধ্যে ৪ টি মাসকে সম্মানিত মাস হিসেবে উল্লেখ করেছেন। এর মধ্যে অন্যতম হলো জিলহজ্ব মাস। 

পুরো জিলহজ্ব মাসই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু প্রথম ১০ দিনের গুরুত্ব ও ফজিলত অপরিসীম। পবিত্র কুরআনের সূরায়ে ফজরের শুরুতে আল্লাহ্ তায়ালা বলেন- “কসম প্রভাতের এবং ১০ রাতের।” (সুরা : ফজর, আয়াত : ১-২)

এখানে যে ১০ রাতের কথা বলা হয়েছে, তা কোন কোন তাফসিরকারক সূরা ফজরের এ আয়াতের মাধ্যমে জিলহজ্ব মাসের প্রথম ১০ রাতকে বুঝিয়েছেন বলে মনে করেন। (তাফসিরে ইবনে কাসির, চতুর্থ খণ্ড, পৃষ্ঠা ৫৩৫)। 

হাদিস শরিফে জিলহজ্ব মাসের প্রথম ১০ দিন সম্পর্কে বলা হয়েছে। রাসূলুল্লাহ (সা.) বলেছেনঃ আল্লাহ্ তা’আলার নিকট জিলহজ্বের প্রথম ১০ দিনের ইবাদত অপেক্ষা অধিক পছন্দনীয় আর কোন ইবাদত নেই। [সহিহ্ বুখারী খণ্ড ২, ৪৫৭]

এই ১০ দিনের মধ্যে শেষের দু’দিন হলো সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। যাকে হাদিসের পরিভাষায় ‘ইয়াওমে আরাফা’ ও ‘ইয়াওমে নাহর’ বলা হয়। এ ছাড়াও দুটি ইবাদত এ মাসের প্রথম দশককে বৈশিষ্ট্য মণ্ডিত করে তোলে। যে ইবাদত জিলহজ্ব মাস ছাড়া অন্য কোনো মাসে আদায় করা করা যায় না-

১. হজ্ব 
২. কুরবানি।

বিজ্ঞাপন





শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই সম্পর্কিত আরও
© ২০২১ - সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । হক কথা ২৪.নেট
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )