1. faysalislam405@gmail.com : ফয়সাল ইসলাম : ফয়সাল ইসলাম
  2. tajul.islam.jalaly@gmail.com : তাজুল ইসলাম জালালি : তাজুল ইসলাম জালালি
  3. marufshakhawat549@gmail.com : মারুফ হোসেন : মারুফ হোসেন
  4. saddam.samad.24@gmail.com : সাদ্দাম হোসাইন : সাদ্দাম হোসাইন
  5. : :
শনিবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৪:০৭ অপরাহ্ন

তেলের দাম বাড়ায় মিলছে না গণপরিবহন, পথে পথে ভোগান্তি

সাদ্দাম হোসাইন
  • প্রকাশিতঃ শনিবার, ৬ আগস্ট, ২০২২
  • ১২০ বার পড়া হয়েছে
তেলের দাম বাড়ায় মিলছে না গণপরিবহন, পথে পথে ভোগান্তি

গতকাল শুক্রবার (৫ আগস্ট) সন্ধ্যায় সরকার জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন। এর জের ধরে আজ শনিবার ভোর থেকেই রাজধানীতে বাসের সংখ্যা কমতে শুরু করেছে। এতে অফিসসহ বিভিন্ন গন্তব্যের যাত্রীরা বড় ভোগান্তিতে পড়েছেন।

অফিসগামী যাত্রী দীর্ঘ সময় দাঁড়িয়ে থেকেও বাস পাচ্ছেন না। সিএনজিচালিত অটোরিকশা, মোটরসাইকেল বা রিকশায় চড়তে গেলে দ্বিগুণ ভাড়া গুনতে হচ্ছে।

সকাল থেকে রাজধানীর বাড্ডা, রামপুরা, বনশ্রী, মগবাজার এলাকায় বাস সংকটের এ চিত্র দেখা যায়।

ডেমরা স্টাফ কোয়ার্টার থেকে ছেড়ে আসা বাসগুলো মেরাদিয়া বাজার, বনশ্রী, রামপুরা ব্রিজ হয়ে শহরের বিভিন্ন প্রান্তে চলাচল করে। এই পথের বেশ কয়েকটি কোম্পানির বাস সকাল থেকে বন্ধ রয়েছে। অন্য কোম্পানির বাসগুলো সংখ্যায় অনেক কম।

শাহিন আহমেদ বাড্ডা থেকে শ্যামলীতে গিয়ে অফিস করেন। প্রতিদিন সকাল ৮ টায় রাস্তায় নেমে ৫ মিনিটের মধ্যে বাসে উঠতে পারেন। সকাল হওয়া তখন বাসের সিটও খালি থাকে। কিন্তু আজ সকাল ৮টা থেকে প্রায় ৩০ মিনিট দাঁড়িয়ে থেকেও কোনো বাসে উঠতে পারেননি।

শাহিন আহমেদের মতো অনেক যাত্রী রাস্তার মোড়ে মোড়ে বাসের জন্য অপেক্ষা করতে থাকেন। বেশি দুর্ভোগে পড়েন নারীরা।

রামপুরা ব্রিজে আধা ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থেকে কোনো বাসে উঠতে পারেননি নাজমুন নাহার নামের এক বেসরকারি চাকরিজীবী। তিনি বলেন, আজকে ভিক্টর, তুরাগ বাস রাস্তায় একদম কম। দুই- একটা আসছে। তাতে আর ওঠার উপায় নেই।

বাসে না উঠতে পেরে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় যাওয়ার চেষ্টা করেছিলেন নাজমুন, কিন্তু অটোরিকশায় প্রায় দ্বিগুণ ভাড়া চাওয়া হয় বলে জানান তিনি। এমনিতে রাস্তায় বাস কম। এর মধ্যে সিএনজি, মোটরসাইকেলেও ভাড়া বেড়ে গেছে। কীভাবে অফিস যাব জানি না।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বনশ্রী থেকে মোহাম্মদপুরগামী একটি পরিবহনের চালক বলেন, ‘অনেক কোম্পানির মালিক বাস নামাইতে না করছে বলে শুনছি। ভাড়া বাড়লে বাস নামাবে। এটা সরকারকে ভাড়া বাড়ানোর জন্য চাপ দেয়ার কৌশল।’

এর আগে, গতকাল শুক্রবার (৫ আগস্ট) বৈশ্বিক পরিস্থিতির কথা জানিয়ে দেশে জ্বালানি তেলের দাম আরেক দফা বাড়ানোর ঘোষণা দেয় সরকার। বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়ের শুক্রবার সন্ধ্যার প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়, ডিজেল ও কেরোসিনের দাম লিটারে ৩৪ টাকা বাড়ানো হয়েছে। নতুন দাম অনুযায়ী এক লিটার ডিজেল ও কেরোসিন কিনতে হবে ১১৪ টাকায়।

অন্যদিকে অকটেনের দাম লিটারে বাড়ানো হয় ৪৬ টাকা। এখন প্রতি লিটার অকটেন কিনতে ১৩৫ টাকা ‍গুনতে হবে। এর বাইরে লিটারপ্রতি ৪৪ টাকা বাড়ানো হয় পেট্রলের দাম। এখন থেকে জ্বালানিটির প্রতি লিটার ১৩০ টাকা। শতকরা হিসাবে ডিজেলের দাম বাড়ানো হয় ৪২ দশমিক ৫ শতাংশ। আর অকটেন ও পেট্রলের দাম বৃদ্ধি করা হয় ৫১ শতাংশ।

জ্বালানি তেলের বর্ধিত এ দাম কার্যকর হয় শুক্রবার মধ্যরাত থেকে। এর আগেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে জ্বালানি তেল নিতে পেট্রল পাম্পে ভিড় জমান গাড়িচালকরা, তবে অনেক জায়গায় বন্ধ করে দেয়া হয় পেট্রল পাম্প।

তেলের দাম বাড়ায় মিলছে না গণপরিবহন, পথে পথে ভোগান্তি

বিজ্ঞাপন




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই সম্পর্কিত আরও
Share via
Copy link
© ২০২৩- সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । হক কথা ২৪.নেট
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )
Share via
Copy link