1. yenboravisluettah@gmail.com : bimak73555 :
  2. faysalislam405@gmail.com : ফয়সাল ইসলাম : ফয়সাল ইসলাম
  3. tajul.islam.jalaly@gmail.com : তাজুল ইসলাম জালালি : তাজুল ইসলাম জালালি
  4. marufshakhawat549@gmail.com : মারুফ হোসেন : মারুফ হোসেন
  5. saddam.samad.24@gmail.com : সাদ্দাম হোসাইন : সাদ্দাম হোসাইন
  6. : :
বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:২৫ পূর্বাহ্ন

নামাযের ওয়াজিব ১৪টি

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন, ২০২১
  • ২৪৬ বার পড়া হয়েছে
Prayer

নামাযের ওয়াজিব ১৪ টি। ওয়াজিব অর্থ আবশ্যকীয় বিষয়, যা ফরজের প্রায় কাছাকাছি। অনিচ্ছাকৃতভাবে যা ছুটে গেলে সাহু সিজদাহ্ আবশ্যক হয়।

বিঃদ্রঃ সাহু সিজদাহ হলো নামাযের শেষ বৈঠকে উভয় দিকে বা শুধু ডান দিকে সালাম ফিরিয়ে আবার দুই সিজদাহ করে তারপর আবার বৈঠক করে তাশাহুদ. দুরূদ শরীফ, দোয়া মাসুরা পড়ে সালাম ফিরিয়ে নামায শেষ করা। (বুঝে না থাকলে আলেমদের সাথে যোগাযোগ করতে হবে)।

নামাজের ওয়াজিব গুলো হলো-

১। সূরা ফাতিহা (আলহামদু সূরা) পড়া।

২। ফাতিহার সাথে অন্য সূরা (কুরআন শরীফের যেকোনো স্থান হতে সহজ হয়) মিলানো।

৩। প্রথম দুই রাকআতেই কিরাত পড়া।

৪। রুকু থেকে সোজা হয়ে দাঁড়ানো।

৫। দুই সিজদার মাঝে সোজা হয়ে বসা।

৬। প্রথম বৈঠক।

৭। আত্তাহিয়্যাতু পড়া।

৮। আস্তের জায়গায় আস্তে ( যোহরে, আসরে, সুন্নাত ও নফল নামাযে আস্তে কিরাত ) আর জোরের জায়গায় জোরে ( মাগরিব, ঈশা, ফজরে জোরে কিরাত পড়া )।

(একা একা নামাজ আদায়কারীর মাগরিব, ঈশা ও ফজরের নামাজে আস্তে বা জোরে কিরাত পড়ার স্বাধীনতা রয়েছে।)

৯। সালামের মাধ্যমে নামায শেষ করা।

১০। ইমামের অনুসরণ করা।

১১। রুকু-সিজদায় তাড়াহুড়া না করা।

১২। প্রত্যেক রুকনের ধারাবাহিকতা ঠিক রাখা।

১৩। বেতরের নামাযে দোয়ায়ে কুনুত পড়া।

১৪। ঈদের নামাযে অতিরিক্ত ৬ তাকবীর বলা।

সুত্রঃ সুন্নাতী যিন্দিগী। তাজুল ইসলাম জালালী

বিজ্ঞাপন




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই সম্পর্কিত আরও
Share via
Copy link
© ২০২৩- সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । হক কথা ২৪.নেট
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )
Share via
Copy link