● মঙ্গলবার, এপ্রিল 23, 2024 | 07:08 পূর্বাহ্ন

পথশিশু

পথশিশুরাও মানুষ

শিশু আর পথশিশু—এই শব্দ দুটি আলাদা মনে হলেও শিশু আর পথশিশু কিন্তু প্রায় একই শব্দ। শিশু আর পথশিশুর মধ্যে কোনো ভেদাভেদ দেখা যায় না। যদিও তারা রাস্তায় জীবন যাপন করার কারণে পরিচিত হয় পথশিশু হিসেবে। আসলে মানুষের প্রতি মানুষের ভালবাসা, মানবতা ও মনুষ্যত্ব দিন দিন হ্রাস পাচ্ছে। এর ফলে আমাদের দেশে দিন দিন বেড়ে চলেছে পথশিশুর সংখ্যা। আর এর মূল কারণ হলো অজ্ঞতা, দারিদ্র্য, শিক্ষা ও সচেতনতার অভাব।

অনেক পিতা মাতা আছে যারা জন্মের পর সন্তানকে অবহেলা করে। আবার রোজগার করার জন্য সন্তানদের মারধর করে। আর তখনই শুরু হয় তাদের অবহেলিত কষ্টের জীবন। পথশিশুদের এইভাবে বেড়ে ওঠার সাথে সাথে কোমল মুখগুলো পরিচিত হয় নতুন অনেক অসহনীয় অভিজ্ঞতার সঙ্গে। পথশিশুদের মাঝে সমাজের এই কঠিন বাস্তবতা এমনভাবে রূপ ধারণ করে নেয় যে, একসময় ওরাই হয়ে ওঠে সমাজের খারাপ মানুষ নেশাখোর, ছিনতাইকারী ইত্যাদি।

পথশিশু

কি হবে সেই শিশুদের ভবিষ্যৎ? যারা রাস্তায় পত্রিকা বিক্রি করে, ফুল বিক্রি করে কিংবা কিছু খাবে বলে অন্যের কাছে হাত পাতে। তাদের ভবিষ্যৎ কী হবে তা আমাদের জানা নেই। যখন তাদের হাতে থাকার কথা ছিল বই-খাতা, তখন সেই অল্প বয়সে তাদের হাতে থাকে প্লাস্টিকের বস্তা। রাস্তায় রাস্তায় তারা প্লাস্টিক খোঁজে। তখন তাদের নাম হয়ে যায় টোকাই। কী নির্মম বেদনাময় দৃশ্য! এসব তারা করে শুধু দুই বেলা দুমুঠো ডাল–ভাত খেয়ে বেঁচে থাকার জন্য। খোলা আকাশের নিচে রাস্তার পাশে, রেললাইনের ধারে শান্তিতে একটু ঘুমিয়ে থাকার জন্য। ইচ্ছা করে বা কোনো স্বপ্ন পূরণের জন্যও নয়। কিন্তু পথশিশুরাও তো মানুষ, ওদেরও তো জীবন আছে, জীবনে ইচ্ছা ও স্বপ্ন আছে। স্বাধীন ও সুন্দরভাবে বাঁচার অধিকার আছে।

পথশিশুরা সাধারণত টোকাই নামেই পরিচিত। জন্মগতভাবে কেউই পথশিশু বা টোকাই নামে পরিচিত না বা টোকাই নামে জন্মগ্রহণ করে না। এই শিশুদের পথশিশু বা টোকাই নামের পিছনে লুকিয়ে থাকে দীর্ঘ কাহিনী। এই পথশিশুরা বেশির ভাগই তৈরি হয় পারিবারিক কলহের কারণে। বাবা মায়ের বিবাহবিচ্ছেদ, সংসারে অতিরিক্ত অভাব, বাবা-মায়ের দূরারোগ্য ব্যাধি কারণে শিশুরা অল্প বয়সে রাস্তায় নেমে আসে। আবার কখনোও দেখা যায় যে শিশুদের চুরি করে নিয়ে এসে রাস্তায় ছেড়ে দেয় ভিক্ষা করে অর্থ উপার্জনের জন্য। অনেককে এ কাজে বাধ্য করা হয়, অনেক অবৈধ সন্তানও বড় হয় যারা হচ্ছে টোকাই বা পথশিশু। তাদের থাকা, খাওয়া, ঘুমানোর কোনো জায়গা থাকে না। তারা রাস্তায়, পার্কে, বাস স্টেশন, রেল স্টেশন বা খোলা কোনো জায়গায় থাকে। তবে এদের কোনো নির্দিষ্ট ঠিকানা নেই। পথেই কাটে তাদের সারাটা জীবন।

পথশিশুদের জন্য অনেক বেসরকারিসহ কিছু সরকারি উদ্যোগ রয়েছে। এসব সংগঠন তাদের খাবার, পোশাক, প্রাথমিক শিক্ষা দেন। তবে দিনশেষে তাদেরকে আবার সেই পথেই ফিরে আসতে হয়। কারণ এসকল উদ্যোগগুলোর কোনোটাই টেকসই নয়। এতে পথশিশুদের কোনো উন্নতি হয় না। কারণ তাদের প্রয়োজন স্থায়ীভাবে মৌলিক চাহিদা। সরকার যদি পথশিশুদের প্রতি নজর রাখে তাহলে তাদের জীবন বদলে যেতে পারে। পথশিশুরাও মানুষ তাই তাদের প্রতি বিশেষ নজর দিতে হবে। তাদের জীবনের মূল ধারায় ফিরিয়ে আনা অত্যন্ত প্রয়োজন। এ সম্পর্কে সরকারকে যথেষ্ট পদক্ষেপ নিতে হবে।

এই সম্পর্কিত আরও

আবুল কালাম
বিস্তারিত...
 আরবে ঈদের তারিখ ঘোষণা
বিস্তারিত...
813788_175
বিস্তারিত...
রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান
বিস্তারিত...
জান্নাতের ফুল
বিস্তারিত...
কাজী নজরুল ইসলাম
বিস্তারিত...