● মঙ্গলবার, এপ্রিল 23, 2024 | 07:42 পূর্বাহ্ন

রমজানের আগমন সংবাদে আনন্দ প্রকাশ করা

রমজানের আগমন সংবাদে আনন্দ প্রকাশ করা

রমজান মাসের আগমনে মুমিন বান্দারা সবচেয়ে বেশি আনন্দ পান। আল্লামা ইমাম সাদি (র.) বলেন, ইহকালীন ও পরকালীন বিপুল নেয়ামতরাজির সঙ্গে পার্থিব জগতের অর্জনের কোনো তুলনা নেই; পার্থিব সঞ্চয় তা যতই অঢেল ও বিচিত্র হোক না কেন, একদিন তা শেষ হয়ে যাবে। আল্লাহ তায়ালা তাই তার প্রদত্ত ফজিলত ও করুণাকে আনন্দের উপকরণ হিসাবে নির্ধারণ করেছেন এবং তাকে স্ফূর্তির মাধ্যম হিসাবে গ্রহণ করতে নির্দেশ দিয়েছেন। আল্লাহ বলেন-‘বল, এটা আল্লাহর অনুগ্রহ ও তাঁর দয়ায়। সুতরাং এতে তারা আনন্দিত হোক। তারা যা সঞ্চয় করে এটা তার চেয়ে উত্তম।’ (সূরা ইউনুস, আয়াত ৫৮)।

রাসূলুল্লাহ (সা:) নিজেও অতিশয় আনন্দিত হতেন এবং বিভিন্ন সময়ে রহমত-বরকত ও কল্যাণ বর্ষণ এবং অবতরণের উপলক্ষ্য ও অনুষঙ্গগুলোর কারণে ব্যাকুল হতেন। সাহাবিদের বলতেন, তোমাদের দ্বারে বরকতময় মাস রমজান এসেছে। (নাসায়ি, হাদিস ২১০৬)।

রমজান একটি ফরজ ইবাদত। আল্লাহ পাকের নৈকট্য লাভের উত্তম মাধ্যম। নিজের গোনাহ্ খাতাকে কেটে আমলে সালেহ দ্বারা জীবনকে সাজিয়ে সে মতে সারা বছর চলার ফলপ্রসূ প্রশিক্ষণ দেয় এই রমজান। অতএব, প্রত্যেক মুমিনের মাহেন্দ্রক্ষণ এ রমজানের সদ্ব্যবহারের উত্তম প্রমাণ হলো-এ ব্যাপারে নবিজি (সা:)-এর মতো করে সর্বাত্মক প্রস্তুতি গ্রহণ করা, মানসিক ও আত্মিকভাবে রমজানকে স্বাগত জানানোর জন্য প্রস্তুত থাকে। তা যেন পূর্ণাঙ্গভাবে কল্যাণব্রতী হয় এবং সময়গুলো পরিপূর্ণ কাজে লাগিয়ে জীবন সুন্দর ও আলোকিত করা যায়।

এই সম্পর্কিত আরও

আবুল কালাম
বিস্তারিত...
 আরবে ঈদের তারিখ ঘোষণা
বিস্তারিত...
813788_175
বিস্তারিত...
রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান
বিস্তারিত...
জান্নাতের ফুল
বিস্তারিত...
কাজী নজরুল ইসলাম
বিস্তারিত...