● সোমবার, জুলাই 22, 2024 | 06:04 অপরাহ্ন

মাহে মাসের মাহাত্ম্য

রমজান মাসের মাহাত্ম্য

পবিত্র রমজান মাধ্যমে সম্ভব দুনিয়া ও আখেরাতে কল্যাণ সাধন করা। আল্লাহ তা’আলা মানবজাতিকে সৃষ্টি করে তার সাথে সত্য প্রদর্শনের জন্য নবী-রাসুল প্রেরণ করেছেন। তাদের মাধ্যমে তিনি তার দিকনির্দেশনা বা বিধানও পাঠিয়েছেন  যা ‘গাইডবুক’ হিসেবে অভিহিত। মহাগ্রন্থ ‘আল কুরআন’ তেমনি এক নির্দেশনা। এ কুরআন পবিত্র রমজান মাসে নাজিল হয়েছে। অন্য সকল আসমানী কিতাবও এ পবিত্র মাসে নাজিল হয়।

আল্লামা ইবনে কাছির বলেন “এটা সেই মাস যে মাসে নবীগণের ওপর আল্লাহর কিতাবসমূহ নাজিল করা হয়েছে।” অতএব, রমজান মাস শুধু কুরআন নাজিলের মাস নয়; সকল আসমানী কিতাব নাজিলেরও মাস। এ মাসেরই ৬ তারিখে মুসা (আ:) এর ওপর তাওরাত, ১৮ তারিখে দাউদ (আ:) এর ওপর যবুর, ১৩ তারিখে ঈসা (আ:) এর উপর ইনজিল এবং শেষ ১০ দিনের কোন এক বিজোড় রাতে আল কুরআন অবতীর্ণ হয়। কুরআন নাযিলের এ রাতকে ‘লাইলাতুল কদর’ বা ‘কদরের রাত’ বলা হয়।

শুধু তাই নয় এ মাসের ২য় হিজরির ১৭ই রমজান বদর যুদ্ধ সংঘটিত হয় এবং মুসলমানরা বিজয় লাভ করেন। ৮ম হিজরির ২০ শে রমজান মক্কা বিজয় হয়। রমজানের প্রথম রাত্রি হযরত ইবরাহিম (আ:)-এর ওপর সহিফা নাজিল হয়। ১৩ই রমজান আমর বিন আসের নেতৃত্বে জেরুসালেম জয়ী হয়। রমজান মাসেই হযরত সুমাইয়া নির্মমভাবে শহীদ হন। রমজান মাসে মুসলমানদের পবিত্রস্থান বায়তুল মোকাদ্দাস বিজয় হয়। আর এ কারণে মাসটি অতি মহিমান্বিত।

এই সম্পর্কিত আরও

কাবার চাবি
বিস্তারিত...
হজ-2025
বিস্তারিত...
খিলাফত
বিস্তারিত...
office-course
বিস্তারিত...
আবুল কালাম
বিস্তারিত...
সৌদি আরবে ঈদের তারিখ ঘোষণা
বিস্তারিত...