1. faysalislam405@gmail.com : ফয়সাল ইসলাম : ফয়সাল ইসলাম
  2. tajul.islam.jalaly@gmail.com : তাজুল ইসলাম জালালি : তাজুল ইসলাম জালালি
  3. marufshakhawat549@gmail.com : মারুফ হোসেন : মারুফ হোসেন
  4. sheikhmustakikmustak@gmail.com : Sheikh Mustakim Mustak : Sheikh Mustakim Mustak
  5. najmulnayeem5@gmail.com : নাজমুল নাঈম : নাজমুল নাঈম
  6. rj.black.privateboy@gmail.com : rjblack :
  7. saddam.samad.24@gmail.com : সাদ্দাম হোসাইন : সাদ্দাম হোসাইন
  8. samirahmehd1997@gmail.com : Samir Ahmed : Samir Ahmed
মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:৪৫ অপরাহ্ন

শিক্ষার্থীদের সুরক্ষা নাকি অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির ভয় কি কারণে বন্ধ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান?

সাদ্দাম হোসাইন
  • প্রকাশিতঃ রবিবার, ২৯ আগস্ট, ২০২১
  • ৩২ বার পড়া হয়েছে
কি কারণে বন্ধ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান
কি কারণে বন্ধ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান?

বাংলাদেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান যেভাবে বন্ধ রয়েছে তাতে সারা বিশ্বেই নজর করেছে। এর আগে কোনোদিন এতোদিন বন্ধ ছিলো না শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের প্রাণকেন্দ্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। আর এখন এই বিষয়টি এমন এক পর্যায়ে এসেছে যেখানে শিক্ষক, শিক্ষার্থী এমনকি অভিভাবকরাও পর্যন্ত খুলে দেওয়ার দাবি জানাচ্ছে।

করোনা ভাইরাস দিনকে দিন তার রূপ বদল করে। আজ সংক্রমনের ধারা কম তো কাল আবার বেশি, আজ বেশি তো কাল কম। এভাবেই চলছে করোনার খেলা। আর ভুগতে হচ্ছে শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবকদের। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে শুরু করে দেশের সকল বিশেষজ্ঞদের কাছ থেকে যত কথা শোনা গেছে তা থেকে বোঝা যায়, করোনার প্রকোট না কমায় শিক্ষার্থীদের কথা ভেবেই, তাদের সুরক্ষার জন্যই এখনো বন্ধ রয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। খুলবে খুলবে করে আশ্বাস দিয়েও করোনার কারণে পরে আর খোলা হয় না।

কিন্তু আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের মুখে যেই কথা শোনা গেছে তাতে সকলের মনেই প্রশ্ন জেগেছে। তিনি বলেছেন, দক্ষিণ এশিয়ার একটি দেশে ক্ষমতার পরিবর্তনে এখানে একটি গোষ্ঠী উচ্ছ্বসিত। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার পর বিশ্ববিদ্যালয়কে ঘিরে এরা অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির প্রস্তুতি নিচ্ছে। যদি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা হয় তাহলে একদল উগ্রগোষ্ঠী আন্দোলন করবে। অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি করবে।

এরপর থেকে সকলের মনে শুধু একটাই প্রশ্ন ‘তাহলে কি শিক্ষার্থীদের সুরক্ষা নয় অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির ভয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা হচ্ছে না?’ যদি এমনটাই হয় তাহলেতো বলা যায়, শিক্ষার্থীদের শিক্ষা দেওয়ার, তাদের জীবনের, তাদের ভালো থাকার কোনো মূল্যই নেই। একজন শিক্ষার্থী যখন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে দূরে থাকে তখন যত ভাবেই শিক্ষা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হোক না কেন তা পরিপূর্ণ কাজ করে না।

আজ দেশের সব কিছু খোলা, সবকিছুই চালু আছে এমনকি গত দু’দিন আগে জাতীয় চিড়িয়াখানাও খুলে দেওয়া হয়। এসব জায়গায়তো শিক্ষার্থীরাও ঘুরতে যায়। টেলিভিশনের খবরে, খবরের কাগজে যত জায়গায় দেখা হয়েছে সব জায়গায়ই দেখা গেছে ছোট্ট ছেলেমেয়েরা, যুবক-যুবতীরা পরিবার বা বন্ধু বান্ধব নিয়ে ঘুরতে গিয়েছে। তারাওতো শিক্ষার্থী। তারা যদি করোনার মধ্যেই সকল উম্মুক্ত জায়গায় যেতে পারে তাহলে কেন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যেতে পারছে না?

এসব অঙ্ক করতে গেলে ঘুরেফিরে তো সেই উত্তরই সামনে আসে ‘শিক্ষার্থীদের সুরক্ষা নয় অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির ভয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা হচ্ছে না।’ আর যদি শিক্ষার্থীদের কথা ভাবাই হয় তাহলে আমি মনে করি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ না রেখে খুলে দেওয়া উচিত। কারণ শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা এখন যেসকল সমস্যায় ভুগছেন তা এদেশের শিক্ষিত জাতির কাছে অজানা নয়।

বিজ্ঞাপন





শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই সম্পর্কিত আরও
© ২০২১ - সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । হক কথা ২৪.নেট
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )