● সোমবার, জুলাই 22, 2024 | 05:04 অপরাহ্ন

৫০০ দিন পেরিয়ে গেল

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের আজ ৫০০ তম দিন, ছুটির ঘণ্টা বাজে না…

বাবা-মা অনেক স্বপ্ন নিয়ে লেখাপড়া করানোর জন্য প্রিয় কলিজার টুকরা সন্তানকে ভর্তি করেছিলেন বিদ্যালয়ে। কিন্তু এখনো পর্যন্ত শিক্ষার আলো বিলানোর কারখানা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানই খুলেনি। বন্ধের ফিরিস্তিও অনেক দীর্ঘ। মোট ৫০০ দিন।

গত বছর করোনা আক্রমণ করার পরেই ১৮ মার্চ বন্ধ করা হয়েছিলো দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো। এরপর ধারাবাহিকভাবে বন্ধই রয়েছে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। মাঝে মধ্যে খোলার কথা শোনা গেলেও পরে আর খোলা হয় না।। খুলবে খুলবে করে করেও ২০২০ সালের ১৮ মার্চ থেকে আজ ২০২১ সালের ২৯ জুলাই পার হয়ে গেলো ৫০০ দিন।

সেদিন থেকে এই ৫০০ টি দিন খুলেনি কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দরজা। বিদ্যালয়ে যায়নি কোনো শিক্ষার্থী। দেশের অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বিরাণভূমিতে পরিণত হয়েছে। কোথাও কোথাও স্কুলের ভবনে গরু-ছাগল লালন-পালন করা হচ্ছে। যেখানে থাকা দরকার ছিলো ছাত্র-শিক্ষক। সেখানে এখন বিচরণ করছে গরু-ছাগল আর রাখাল। গোয়ালঘর বানানো এসব প্রতিষ্ঠান ঠিক কবে আবার শিক্ষক-ছাত্রের আনাগোনায় মূখর হবে-তা জানা নেই কারো।

সরকার বর্তমানে চলমান শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার নির্দিষ্ট কোনো তারিখ জানাতে পারেনি। তবে সেপ্টেম্বরের শেষের দিকে খুলতে পারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান-এমন একটি বক্তব্য গণমাধ্যমের এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন শিক্ষাসচিব। তবে সেটাও ঠিক থাকবে কি না এখনি জানা যাচ্ছে না।

বাংলাদেশে করোনা শনাক্ত হওয়ার পর গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে বন্ধ রয়েছে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। দফায় দফায় এ ছুটি বাড়িয়ে ৩০ জুন পর্যন্ত করা হয়। ১২ জুন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের চলমান ছুটি আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়ানোর নোটিশ দিয়ে বলেন, এ সময়ে দেশের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং ইবতেদায়ী ও কওমি মাদরাসা বন্ধ থাকবে।

তবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার আগে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের ভ্যাকসিন দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। সম্প্রতি এমন তথ্যই জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব। কিন্তু কতসংখ্যক শিক্ষার্থীকে দ্রুত সময়ে টিকার আওতায় আনা যাবে, এ প্রশ্ন রয়েই যায়। বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলে থাকা ১ লাখ ৩০ হাজার শিক্ষার্থীকে টিকা দেওয়ার জন্য তাদের তালিকা স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে পাঠানো হলেও অনেক শিক্ষার্থী এখনো টিকার প্রথম ডোজই দেয়নি।

সবশেষে আজ ৫০০ তম দিন পেরিয়ে গেছে, তবুও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার কোনো ইঙ্গিতই পাওয়া যায়নি। আরও কতদিন পর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হবে তা সময়ই বলে দিবে। এখন শুধুই অপেক্ষা ছাড়া আর কিছুই করার নেই। তবে বাংলাদেশের ৩ কোটি শিক্ষার্থীর আশা, শীঘ্রই অবসান ঘটবে তাদের অপেক্ষার। আবার তারা মধু আহরণে যাবেন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে। আলো বিলাবেন পৃথিবীজুড়ে।

এই সম্পর্কিত আরও

কাবার চাবি
বিস্তারিত...
হজ-2025
বিস্তারিত...
খিলাফত
বিস্তারিত...
office-course
বিস্তারিত...
আবুল কালাম
বিস্তারিত...
সৌদি আরবে ঈদের তারিখ ঘোষণা
বিস্তারিত...