1. faysalislam405@gmail.com : ফয়সাল ইসলাম : ফয়সাল ইসলাম
  2. tajul.islam.jalaly@gmail.com : তাজুল ইসলাম জালালি : তাজুল ইসলাম জালালি
  3. marufshakhawat549@gmail.com : মারুফ হোসেন : মারুফ হোসেন
  4. najmulnayeem5@gmail.com : নাজমুল নাঈম : নাজমুল নাঈম
  5. saddam.samad.24@gmail.com : সাদ্দাম হোসাইন : সাদ্দাম হোসাইন
শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ০৫:৫৩ পূর্বাহ্ন

সবচেয়ে দীর্ঘ সময়ের রোজা যেসব দেশে

সাদ্দাম হোসাইন
  • প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, ৫ এপ্রিল, ২০২২
  • ৩৮ বার পড়া হয়েছে
সবচেয়ে দীর্ঘ সময়ের রোজা যেসব দেশে

পবিত্র রমজান মাসে বিশ্বের প্রতিটি দেশেই মুসলিম জাতিরা রোজা রাখছেন। চাঁদ দেখার ওপর ভিত্তি করে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রোজা শুরু হয়। চাঁদ দেখার ওপর ভিত্তি করে যেমন রোজা শুরু বা শেষ হওয়ার তারিখ নির্ধারিত হয়, তেমনি সূর্যের উদয় বা অস্ত যাওয়ার ওপর নির্ভর করে রোজার সময়।

সারা পৃথিবীতে একই সময় রোজা শুরু হলেও বিভিন্ন দেশে রয়েছে সময়ের পার্থক্য। বিশ্বের কোনো কোনো দেশে ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের ইফতারের দুই ঘণ্টা পরই সেহরি খেতে হয়। অর্থাৎ তাদের জন্য রোজা ২২ ঘণ্টার।

বিশ্বের কোন দেশগুলোতে মুসলমানদের সবচেয়ে লম্বা সময়ের রোজা রাখতে হয় সেটা জেনে নেয়া যাক।

আইসল্যান্ড– আইসল্যান্ডের মুসলমানরা ২১ ঘণ্টা রোজা রাখেন। সেখানে এক হাজার জনেরও কম মুসলমান বাস করেন। আইসল্যান্ডের মুসলমানদের এবারের রোজার শুরুতে সেহরি খেতে হচ্ছে রাত ৩টায়। আর ইফতার করতে হয় পরের দিন রাত সাড়ে ৯টায়। তাদের রোজার শেষের দিকে সেহরি খেতে হবে ২টা ২০-এ আর ইফতার রাত ১১টায়। সব মিলিয়ে সময় দাঁড়াচ্ছে ২১ ঘণ্টা!

সুইডেন– সুইডেনের মুসলিমদের ২০ ঘণ্টা রোজা রাখতে হয়। গরমের মধ্যে রোজা হলে সুইডেনের মুসলমানদেরও কষ্টের সীমা থাকে না। দেশটির আট লাখ মুসলমানের মধ্যে যারা রোজা রাখেন, তারা ইফতারের মাত্র চার ঘণ্টা পরই সেহরি খান। সুইডেনের মুসলমানদের অনেক দিন সেহরির প্রায় ২০ ঘণ্টা পর ইফতার করতে হয়।

আলাস্কা– আলাস্কায় সূর্য ডোবে ১৯ ঘণ্টা পর। যুক্তরাষ্ট্রের আলাস্কায় ৩ হাজার মুসলমানের মধ্যে কেউ কেউ আজকাল সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে সেহরি আর ইফতার শুরু করেছেন৷ সেখানে গ্রীষ্মকালে ভীষণ গরম থাকে। তার ওপর কোনো কোনো দিন সূর্যোদয়ের ১৯ ঘণ্টা পর সূর্য ডোবে৷

জার্মানি- জার্মানিতে ১৭ ঘণ্টা পর ইফতার। রমজান মাসের সময় দিন খুব বড় হলে জার্মানির মুসলমানদেরও রোজা রাখতে ভীষণ কষ্ট হয়। এ বছর জার্মানির বার্লিনে ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের সেহরি খেতে হচ্ছে রাত প্রায় ৪টায় আর ইফতার রাত পৌনে ৯টায়৷

ইংল্যান্ড- ইংল্যান্ডের মুসলমানদের ১৭ ঘণ্টা রোজা রাখতে হয়। সেহরি থেকে ইফতারের সময়ের পার্থক্য প্রায় ১৭ ঘণ্টা। প্রথম রমজানে সেহরি খেতে হয় প্রায় সাড়ে ৩টার মধ্যে। ইফতারের সময় পরের দিন সন্ধ্যা সোয়া ৮টা নাগাদ, যা শেষ রোজায় প্রায় ৯টায় গিয়ে ঠেকবে৷

কানাডা- কানাডায় ১৬ ঘণ্টা পর ইফতার। কানাডায় প্রায় ১০ লাখ মুসলমান আছে। সবচেয়ে বেশি মুসলমানের বাস টরন্টোতে৷ এবার তাদের কোনো কোনো দিন সেহরির প্রায় ১৬ থেকে ১৭ ঘণ্টা পর ইফতারি খেতে হবে ৷

তুরস্ক- সাড়ে ১৫ ঘণ্টা রোজা রাখতে হয় তুরস্কের মুসলমানদের। মুসলিম প্রধান দেশ তুরস্কেও গরমকালে খুব কষ্ট করে রোজা রাখতে হয়। এবার সেহরির প্রায় ১৫ ঘণ্টা পর ইফতার করতে হচ্ছে ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের।

সবচেয়ে দীর্ঘ সময়ের রোজা যেসব দেশে

বিজ্ঞাপন




Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই সম্পর্কিত আরও
Share via
Copy link
© ২০২২- সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । হক কথা ২৪.নেট
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )
Share via
Copy link