1. faysalislam405@gmail.com : ফয়সাল ইসলাম : ফয়সাল ইসলাম
  2. tajul.islam.jalaly@gmail.com : তাজুল ইসলাম জালালি : তাজুল ইসলাম জালালি
  3. marufshakhawat549@gmail.com : মারুফ হোসেন : মারুফ হোসেন
  4. sheikhmustakikmustak@gmail.com : Sheikh Mustakim Mustak : Sheikh Mustakim Mustak
  5. najmulnayeem5@gmail.com : নাজমুল নাঈম : নাজমুল নাঈম
  6. rj.black.privateboy@gmail.com : rjblack :
  7. saddam.samad.24@gmail.com : সাদ্দাম হোসাইন : সাদ্দাম হোসাইন
  8. samirahmehd1997@gmail.com : Samir Ahmed : Samir Ahmed
বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:১৩ পূর্বাহ্ন

সিনেমার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মোনাজাত করে অনুতপ্ত সেই ব্যক্তি

সাদ্দাম হোসাইন
  • প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০২১
  • ১৩ বার পড়া হয়েছে
সিনেমার উদ্বোধনীতে মোনাজাত করে অনুতপ্ত
সিনেমার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মোনাজাত করেছেন এক মসজিদের খাদেম।

সিনেমার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মোনাজাত করেছেন এক মসজিদের খাদেম। তারপর থেকেই তিনি সমালোচনার মুখে পড়েছেন। সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া একটি ভিডিওতে দেখা গেছে কোন এক সিনেমার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পাঞ্জাবি টুপি পরিহিত একজন দোয়া করছেন।

ভিডিও দেখার পর যে কেউ ভেবে বসবেন যিনি দোয়া করছেন তিনি মাদরাসা সংশ্লিষ্ট কেউ। তাকে যদি কেউ সরাসরি আলেমও ভেবে বসেন তাতে খুব একটা ভুল হবে না। তবে ভাইরাল ভিডিওর সেই ব্যক্তি কোন আলেম বা মাদরাসা সংশ্লিষ্ট কেউ নন। তার নাম মোহাম্মদ হোসাইন। তিনি হেফজ শেষ করে একটি মসজিদে খেদমত করতেন। পাশাপাশি বিভিন্ন বাসায় গিয়ে আরবি পড়ান।

অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট আলেম লেখক মাওলানা সাইমুম সাদী নিজেও কথা বলেছেন সে ব্যক্তির সাথে। তার সঙ্গে আলাপচারিতার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে গিয়ে তিনি বলেছেন, মোহাম্মদ হোসাইন নামের সেই ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলে তাকে সরল মনে হয়েছে। আমার সাথে কথা বলার সময় সে কান্না করছিলেন, সে জানতো না যে এটি কোনো সিনেমার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মোনাজাত ছিল। এ বিষয়ে অনুনয়-বিনয় করে ক্ষমাও চেয়েছে সেই ব্যক্তি।

ভিডিওর সেই ব্যক্তি জানিয়েছেন, ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি প্রায় ১০ মাস আগের ঘটনা। তখন তিনি রাজধানীর একটি মসজিদের খাদেম হিসেবে কাজ করতেন। প্রায় ছয় মাস আগে তিনি মসজিদ থেকে চাকরি ছেড়েছেন। বর্তমানে তিনি কোন মসজিদের সাথে সংশ্লিষ্ট নন।

ঘটনা সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘একদিন তিনি রাজধানীর মগবাজার এলাকার কোথাও যাচ্ছিলেন। কেউ একজন ডেকে বলেছিলেন আমাদের একটা অনুষ্ঠানের দোয়া করতে হবে। কথা মত দোয়া করেছিলেন। অনুষ্ঠানটি কোন সিনেমার ছিল আদৌ বুঝতে পারেননি তিনি’।

গত ১০ মাসেও বিষয়টি বুঝতে পারেননি। গতকাল কাজী মারুফ নামের এক ফেসবুক ব্যবহারকারী ভিডিওটি আপলোড করলে তাকে এক মসজিদের ইমাম ফোন করে এ বিষয়ে অবগত করেন। পরবর্তীতে পোস্ট আপলোডকারীর কাছে ফোন করে তিনি ক্ষমা প্রার্থনা করেন।

‘ঘটনাটি জানার পর তিনি বলেছেন, এই দোয়ার অনুষ্ঠান পরবর্তীতে আমার জন্য এমন শাস্তি বয়ে আনবে; আলেম সমাজের জন্য কলঙ্ক হয়ে দাঁড়াবে তা একটুও বুঝতে পারিনি, আমার কারনে বিব্রতকর পরিস্থিতির মুখোমুখি হওয়ায় আমি আলেম সমাজ ও জাতির কাছে ক্ষমা চাই‘।

তিনি আরো বলেছেন, বর্তমানে অনেক ইউটিউবার আমাকে সামনে নিয়ে ভিডিও করতে চাচ্ছেন; কিন্তু এমন বিব্রতকর পরিস্থিতির পরে আমি ক্যামেরার সামনে আর আসতে চাই না। তাই আমাকে সামনে আনতে চেষ্টা না করার আহ্বান জানাচ্ছি ইউটিউবারদের‘।

বিজ্ঞাপন




শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই সম্পর্কিত আরও
© ২০২১ - সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । হক কথা ২৪.নেট
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )