1. faysalislam405@gmail.com : ফয়সাল ইসলাম : ফয়সাল ইসলাম
  2. tajul.islam.jalaly@gmail.com : তাজুল ইসলাম জালালি : তাজুল ইসলাম জালালি
  3. marufshakhawat549@gmail.com : মারুফ হোসেন : মারুফ হোসেন
  4. najmulnayeem5@gmail.com : নাজমুল নাঈম : নাজমুল নাঈম
  5. rj.black.privateboy@gmail.com : rjblack :
  6. saddam.samad.24@gmail.com : সাদ্দাম হোসাইন : সাদ্দাম হোসাইন
  7. samirahmehd1997@gmail.com : Samir Ahmed : Samir Ahmed
বুধবার, ২৩ জুন ২০২১, ০৭:৩৮ পূর্বাহ্ন

আযানের ইতিহাস

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিতঃ বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৮ বার পড়া হয়েছে
Azan

মদীনায় হিজরতের পরপর রাসূল (স.) সাহাবীদের সঙ্গে পরামর্শ করলেন, কিভাবে নামাযের সময় সকলকে একত্র করা যায়। বিভিন্ন ধর্মাবলম্বিদের রীতিনীতির অনুকরণে একেক জন একেক পরামর্শ দিলেন। কেউ উঁচু জায়গায় আগুন জ্বালানোর পরামর্শ দিলেন। কেউ পাঁহাড়ের চুড়ায় উঠে কিংবা গলিতে গলিতে নামাযের ঘোষণা দেওয়ার পরামর্শ দিলেন। কিন্তু রাসূল (স.) কোন পন্থা অনুমোদন করলেন না। এ সময় এক রাতে হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে যায়েদ (রা.) ও অন্য কতিপয় সাহাবীকে স্বপ্নে আযানের দৃশ্য দেখানো হলো। তাঁরা এসে রাসূল (স.)-কে জানালেন, রাসূল (স.) এ পদ্ধতি পছন্দ করলেন এবং হযরত বেলাল (রা.)-কে সে ভাবে আযান দেওয়ার জন্য বললেন। এ পন্থা আল্লাহ তা’আলার পক্ষ থেকে নির্দেশিত হয়েছিল। কুরআনে কারীমের সমর্থন দ্বারা তা প্রমাণিত হয়েছে। আল্লাহ তা’আলা বলেন- এবং যখন তোমরা নামাযের দিকে আহবান কর, তখন তারা একে হাসি-তামাশা ও ক্রীড়ার বিষয় বানিয়ে নেয়। এটাও এজন্য যে, তারা এমন একটি সম্প্রদায়, যারা বিবেক বুদ্ধি দিয়ে বুঝে না।

বিজ্ঞাপন





শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

এই সম্পর্কিত আরও
© ২০২১- সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । হক কথা ২৪.নেট
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )