1. faysalislam405@gmail.com : ফয়সাল ইসলাম : ফয়সাল ইসলাম
  2. tajul.islam.jalaly@gmail.com : তাজুল ইসলাম জালালি : তাজুল ইসলাম জালালি
  3. marufshakhawat549@gmail.com : মারুফ হোসেন : মারুফ হোসেন
  4. najmulnayeem5@gmail.com : নাজমুল নাঈম : নাজমুল নাঈম
  5. rj.black.privateboy@gmail.com : rjblack :
  6. saddam.samad.24@gmail.com : সাদ্দাম হোসাইন : সাদ্দাম হোসাইন
  7. samirahmehd1997@gmail.com : Samir Ahmed : Samir Ahmed
মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০২:২২ অপরাহ্ন

বর্তমান উদযাপিত শবে-বরাত

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিতঃ রবিবার, ২৮ মার্চ, ২০২১
  • ৯ বার পড়া হয়েছে
Shabe-barat

হাদীস দ্বারা সুস্পষ্টভাবে প্রতীয়মান হয় যে, হুযুর (সা:)-এ মাসে অধিকহারে রোযা রাখতেন। তাঁর অনুসারী সাহাবায়ে কেরাম (রা:)-এর আমলও এর ব্যতিক্রম ছিল না। কেননা এ মাসে বান্দার আমল আল্লাহর দরবারে পেশ করা হয়। হুযুর (সা:)-এর আমল দ্বারা ১৫ ই শা’বান দিনে রোযা ও রাতে অধিকহারে নফল ইবাদত করা সুন্নত প্রমাণিত হল। সুতরাং সবার জন্য জরুরী যে, হুযুর (সা:)-এর প্রদর্শিত পথ অনুসরণ করে ইহকাল ও পরকালের সুফল অর্জন করা। কিন্তু অত্যন্ত পরিতাপের বিষয় হল, ইবাদত-বন্দেগী তো দূরের কথা, অশালীন কার্যকলাপের মধ্য দিয়েই এ রাত অতিবাহিত হয়। বাজি ফুটানোর ধুম পড়ে এ রাতে। আকাশ-বাতাস প্রকম্পিত হয়ে ওঠে ফটকার আওয়াজে। কেউ ইবাদত করতে চাইলেও তাদের একাগ্রতা নষ্ট হয়ে যায়। যুবকেরা বিভিন্ন স্থানে অশ্লীল আড্ডায় লিপ্ত থাকে। অথচ এ রাতে ফেরেশতাগণ আল্লাহর রহমত নিয়ে পৃথিবীতে আগমন করেন। মানুষের কৃতকর্মের ফলে অনেক সময় তারা রহমতের পরিবর্তে আযাব নিয়ে আসেন। (নাঊযুবিল্লাহ) সূতরাং হে বন্ধুগণ! আমরা যদি এ রাতে ইবাদত-বন্দেগী বা কোন কল্যাণকর কাজ করতে না পারি, তাহলে অন্তত মন্দ ও অশ্লীল কাজ থেকে বিরত থাকি।

বিজ্ঞাপন





শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

এই সম্পর্কিত আরও
© ২০২১- সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । হক কথা ২৪.নেট
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )