1. faysalislam405@gmail.com : ফয়সাল ইসলাম : ফয়সাল ইসলাম
  2. tajul.islam.jalaly@gmail.com : তাজুল ইসলাম জালালি : তাজুল ইসলাম জালালি
  3. marufshakhawat549@gmail.com : মারুফ হোসেন : মারুফ হোসেন
  4. najmulnayeem5@gmail.com : নাজমুল নাঈম : নাজমুল নাঈম
  5. rj.black.privateboy@gmail.com : rjblack :
  6. saddam.samad.24@gmail.com : সাদ্দাম হোসাইন : সাদ্দাম হোসাইন
  7. samirahmehd1997@gmail.com : Samir Ahmed : Samir Ahmed
মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০২:২০ অপরাহ্ন

শবে কদরের মাহাত্ম্য ও ফজিলত

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিতঃ রবিবার, ৯ মে, ২০২১
  • ৫ বার পড়া হয়েছে
শবে কদরের মাহাত্ম্য ও ফজিলত
শবে কদরের মাহাত্ম্য ও ফজিলত

শবে কদর অত্যন্ত ফজিলত পূর্ণ একটি রাত। এর ইবাদত হাজার মাসের ইবাদতের চেয়েও উত্তম।

রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেন,“যে ব্যক্তি ঈমান ও সওয়াবের আশায় লাইলাতুল কদরে ইবাদত করবে তার সমস্ত গুনাহ মাফ করে দেয়া হবে।”- বুখারী:৩৮, মুসলিম:৭৬০

শবে কদর হাজার মাসের চেয়েও উত্তম। *শবে কদরে ইবাদত করা হাজার মাসের সমান নয় বরং এর চেয়েও উত্তম। হাজার মাসে ৮৩ বছর ৪ মাস হয়। শবে কদরে ইবাদত করা ৮৩ বছর ৪ মাসে ইবাদত করার চেয়েও অধিক উত্তম।

রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, “লাইলাতুল কদর রাত্রিতে হযরত জিবরাঈল আলাইহিস সালাম একদল ফেরেশতাসহ পৃথিবীতে নেমে আসেন। এবং এ রাতে যে ব্যক্তি দাড়িয়ে বা বসে আল্লাহর জিকির ও ইবাদতে মশগুল থাকেন, তাদের জন্য ফেরেশতারা দোয়া করতে থাকেন।”- শুআবুল ঈমান: হাদীস-৩৭১৭

হযরত আয়েশা রাযি. বলেন, “ইয়া রাসুলুল্লাহ! আমরা যদি লাইলাতুল কদর পাই তাহলে কি করবো?” উত্তরে রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন,“তাহলে এই দোয়া পড়বে-
হে আল্লাহ! তুমি পরম ক্ষমাশীল, ক্ষমা করাকে ভালোবাসো, কাজেই তুমি আমাকে ক্ষমা করে দাও।”- তিরমিযী শরীফ: হাদীস-৩৫১৩

সূত্রঃ ওয়াজের ডায়েরী। মাওলানা মাজিদুল হত সুনেশ্বরী

বিজ্ঞাপন





শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

এই সম্পর্কিত আরও
© ২০২১- সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । হক কথা ২৪.নেট
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )