1. faysalislam405@gmail.com : ফয়সাল ইসলাম : ফয়সাল ইসলাম
  2. tajul.islam.jalaly@gmail.com : তাজুল ইসলাম জালালি : তাজুল ইসলাম জালালি
  3. marufshakhawat549@gmail.com : মারুফ হোসেন : মারুফ হোসেন
  4. najmulnayeem5@gmail.com : নাজমুল নাঈম : নাজমুল নাঈম
  5. rj.black.privateboy@gmail.com : rjblack :
  6. saddam.samad.24@gmail.com : সাদ্দাম হোসাইন : সাদ্দাম হোসাইন
  7. samirahmehd1997@gmail.com : Samir Ahmed : Samir Ahmed
বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ০৬:৫৫ অপরাহ্ন

গ্রামবাসীদের তাড়া খেয়ে নীলগাইয়ের মৃত্যু

সাদ্দাম হোসাইন
  • প্রকাশিতঃ শনিবার, ৩ জুলাই, ২০২১
  • ৫২ বার পড়া হয়েছে
গ্রামবাসীর তাড়ায় নীলগাইয়ের মৃত্যু

গ্রামবাসীরা ফসলের খেতে একটি অপরিচিত প্রাণী দেখতে পান। পরে পিছু নিয়ে ওই প্রাণীটিকে ধাওয়া করতে থাকে।। তাদের ধাওয়ায় এদিক–ওদিক ছুটাছুটি করে। এক পর্যায়ে নির্মাণাধীন একটি বাড়ির ভেতর আশ্রয় নিয়েও সেটি রক্ষা পায়নি। সেখানেও গ্রামবাসীর তাড়া খেয়ে নিজেকে রক্ষা করার জন্য ঘরের জানালা দিয়ে বাইরে আছড়ে পড়ে মারা যায় প্রাণীটি।

গতকাল শুক্রবার (২ জুলাই) দুপুরে ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈল উপজেলার ধর্মগড় ইউনিয়নের মুক্তারবস্তি এলাকায় এভাবেই গ্রামবাসীর তাড়া খেয়ে মারা যায় প্রাণীটি। রানীশংকৈল উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা মদন কুমার রায় মারা যাওয়া প্রাণীটি নীলগাই বলে নিশ্চিত করেছেন।

এলাকাবাসী জানান, নীলগাইটি রানীশংকৈল উপজেলার ধর্মগড় সীমান্ত এলাকার কাঁটাতার পেরিয়ে ভারত থেকে বাংলাদেশে আসে। গত কয়েক দিন ধরে নীলগাইটিকে ওই এলাকায় ঘোরাঘুরি করতে দেখে আজ দুপুর ১২টার দিকে গ্রামবাসীরা ধরার চেষ্টা করেন। গ্রামবাসীর ধাওয়া খেয়ে নীলগাইটি হামিদুর রহমান নামের এক ব্যক্তির নির্মাণাধীন বাড়ির ভেতরে ঢুকে যায়। গ্রামবাসী ওই বাড়িটি ঘিরে ফেললে নীলগাইটি জানালা দিয়ে বাইরে লাফ দেয়। এতে আঘাত পেয়ে সেখানেই মারা যায় প্রাণীটি।

প্রাণীটি গ্রামবাসীর তাড়া খেয়ে প্রাণপণ দৌড়ানোর কারণে ক্লান্ত হয়ে পড়েছিল। পরে নির্মাণাধীন বাড়িতে আশ্রয় নিয়েও গ্রামবাসীর চোখ ফাঁকি দিতে পারেনি। জানালা দিয়ে বাইরে লাফাতে গিয়ে আঘাত পেয়ে মাটিতে পড়ে যায় নীলগাইটি। সেখানেই হার্ট অ্যাটাকে মারা গেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান ওই এলাকার প্রাণিসম্পদ বিভাগের লাইভস্টক সার্ভিস প্রোভাইডার (এলএসপি) আকবর আলী। নীলগাই উদ্ধারের খবর শুনে রানীশংকৈল উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা মদন কুমার রায় ও রানীশংকৈলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) প্রীতম সাহাও সেখানে যান।

মদন কুমার রায় বলেন, এটি বিরল প্রজাতির বিলুপ্তপ্রায় একটি বন্য প্রাণী। গাই হিসেবে পরিচিত হলেও নীলগাইটি কখনোই গরুশ্রেণির নয়; বরং এটি এশিয়া মহাদেশের সর্ববৃহৎ হরিণবিশেষ একটি প্রাণী। যার বৈজ্ঞানিক নাম boselaphus tragocamelus. শত বছর আগে ভারত, পাকিস্তান ও বাংলাদেশের বিভিন্ন এলাকায় নীলগাইকে দেখা যেত। একসময় ঠাকুরগাঁও, দিনাজপুর ও পঞ্চগড়ের মাঠেঘাটেও নীলগাইয়ের দেখা মিলত। মারা যাওয়া নীলগাইটি ধূসর রঙের পুরুষ প্রজাতির। বাংলাদেশে অনেক আগেই বিলুপ্ত হওয়া নীলগাইটি ভারত থেকেই প্রবেশ করেছে।

বিজ্ঞাপন





শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই সম্পর্কিত আরও
© ২০২১ - সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । হক কথা ২৪.নেট
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )